ঈদ উল আযহা ২০২৪ বাংলাদেশ শুভেচ্ছা বার্তা, স্ট্যাটাস, উক্তি ও ছবি

ঈদুল আজহা ও কোরবানির ঈদ বাংলাদেশের মুসলিমদের কাছে আনন্দের দিন যা পাঠান করা হবে ১০ জুলাই ২০২৪। পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষে প্রিয়জনকে শুভেচ্ছা বার্তা, স্ট্যাটাস, এসএমএস, উক্তি ও ছবি পাঠাতে পারেন। ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় দুটো ধর্মীয় উৎসবের মধ্যে ঈদুল আযহা দ্বিতীয়। BDJobResults ওয়েবসাইট পরিবারের পক্ষ থেকে সকলকে জানাই ঈদ মোবারক। আশা করি সবাই ভাল আছেন। ঈদুল আযহা যা স্থানীয় ভাষায় কোরবানির ঈদ হিসেবে বেশ পরিচিত। ঈদ মানে খুশি ঈদ মানে আনন্দ, উৎসব, ভোজের দিন বা ছুটির দিন। অপরদিকে আযহা শব্দের অর্থ বলিদান বা ত্যাগ। প্রিয় পশুটিকে পালন করে কোরবানি দেওয়া হয়। নবী ইব্রাহিম স্বপ্ন দেখেন যে তার সবচেয়ে প্রিয় জিনিসটির কুরবানি চায় মহান আল্লাহতালা। আল্লাহর ইচ্ছা পূরণ করতে তিনি তার প্রিয় পুত্রকে কোরবানি দিতে রাজি হয়। ইব্রাহিম নবীর এই ত্যাগের মাধ্যমে শুরু হয় মুসলিমদের পশু কোরবানি, যা আজও চালু রয়েছে।

ঈদ মোবারক পিকচার 2024

আজ পবিত্র হজ্জ পালিত করছেন ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা। হজ্জ মুসলমানদের জন্য একটি আবশ্যকীয় ইবাদত বা ধর্মীয় উপাসনা। মুহাম্মদ (সাঃ) হজ প্রতিষ্ঠিত করেন। আজকে এই আর্টিকেলে আমরা ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা বার্তা, স্ট্যাটাস, উক্তি ও ছবি, এসএমএস কিভাবে পাবেন তাই নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি। ঈদের আগের রাতে আপনি আপনার আত্নীয় স্বজন, বন্ধু বান্ধব, অফিসের বস, প্রেমিক-প্রেমিকা, বউকে ছবি, SMS, উক্তি ইত্যাদি পাঠাতে পারেন। অপরদিকে ঈদের দিন সকালে ঘুম থেকে উঠে গোসল করে নতুন পোষাক পরিধান করে একসঙ্গে ঈদের নামাজ আদায় করতে পারেন। ঈদুল আযাজার নামাজ শেষে একে অপরের সহিত ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় ও কোলাকুলি করতে পারেন। এরপর সবাই শুরু হয় পশু কোরাবানি দেওয়া। সকলকে আল্লাহর নামে প্রিয় পশুটিকে কুরবানি দিয়ে তার মাংস সকলকের মাঝে বিলিয়ে দেয়।

ঈদ উল আযহা SMS

  • ঈদ এসেছে ঘরে ঘরে, সকল কিছু আলো করে, হল সকালে ঈদের দিন, চারিদিকে খুশির সীমাহীন, ঈদ মোবারক।
  • ঘুমঘুম চোখে স্বপ্নের চাওয়া, ঈদ হল সকল কিছুর পাওয়া, গায়ে লাগুক ঈদের হাওয়া, শুভ হোক এই কামনা, ঈদ মোবারক
  • আকাশেতে চাঁদ উঠেছে, মনের মাঝে ঢেউ উঠেছে, সবার মুখে হাসি ফুটেছে, ঘরে ঘরে হয়ে পড়েছে, শুভ দিন চলে এসেছে, ঈদ মোবারক

কোরবানির ঈদের স্বাস্থ্যবিধি

এ সময় মাংস খাওয়ার উচ্ছ্বাসে সুষম খাবারের কথা যেন ভুলে না যাই। এ ছাড়া এই ঈদ মৌসুমে খাবার গ্রহণের ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত নির্দেশনা অনুসরণ করতে পারেন। শাকসবজি খাওয়ার পরিমাণ বাড়িয়ে দিন। যথাযথ পদ্ধতিতে মাংস রান্না করুন। চর্বি বাদ দিয়ে, অল্প তেলে, উচ্চ তাপে রান্না করুন। লেবুর রস, টক দই, ভিনেগার, পেঁপে প্রভৃতি মাংসকে নরম করে, যা হজমে সহায়ক ভূমিকা রাখে। তাই রান্নার সময় এগুলো ব্যবহার করতে পারেন। মাংস খাওয়ার সময় সালাদ খাবেন। রাতে মাংস না খাওয়াই ভালো। যখনই মাংস খাবেন, এক বেলায় দুই থেকে তিন টুকরার বেশি খাবেন না। উচ্চ রক্তচাপ বা কিডনির সমস্যার মতো জটিল রোগ আছে যাঁদের, তাঁরা মাংস এড়িয়ে চলুন। নেহাত খেতে ইচ্ছা করলে আপনার পুষ্টিবিদের সঙ্গে কথা বলে নিন।

ঈদ মোবারক পিকচার ২০২৪ ডাউনলোড

1


2
3
7
8
9
10
Eid-Ul-Adha-2022-Bangladesh

চূড়ান্ত রায়

পরিশেষে কোরবানির মাংস খাওয়া হয় অনেক বেশি বিরামহীন মাংসভোজন চলে অন্তত পাঁচ-সাত দিন। এক্ষেত্রে মাংস খান, তাতে বাধা নেই কিন্তু কোরবানির মাংস খান পরিমাণ বুঝে। ঈদের সময় সাধারণত গরু, মহিষ, খাসিসহ বিভিন্ন ধরনের লাল মাংসই বেশি খাওয়া হয়। এসব লাল মাংস হৃদ্‌রোগের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়, বেড়ে যায় স্ট্রোকের ঝুঁকি, পাকস্থলী, ক্ষুদ্রান্ত্র, বৃহদান্ত্র, কোলন, প্রোস্টেট ও স্তন ক্যানসারের ঝুঁকি তৈরি হয়, নানা ধরনের রোগে ফুসফুস আক্রান্ত হতে পারে, আর্থ্রাইটিসের ঝুঁকি বেড়ে যায়, পিত্তথলিতে পাথর, পেপটিক আলসারসহ কিডনির জটিলতা হতে পারে। সর্বোপরি সকলকে ধন্যবাদ আমাদের সাথে থাকার জন্য। পোষ্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করতে পারেন।

Total Views: 20 ,

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *